Home আই পি এল উইলিয়ামসন হারলেন, জিতলেন রোহিত শর্মা

উইলিয়ামসন হারলেন, জিতলেন রোহিত শর্মা

by Sha id

উইলিয়ামসন হারলেন, জিতলেন রোহিত শর্মা

শেষ চার বলে ২ রান করতে পারেনি নিউজিল্যান্ড। ফল, ম্যাচ টাই। এরপর সুপার ওভারে ১৭ রান টপকে ম্যাচ জিতে টি-টোয়েন্টি সিরিজ জিতে নিয়েছে ভারত

২০১৬ সালের বেঙ্গালুরুটাই যেন আজ ফিরে এল হ্যামিল্টনে। ২০১৬ টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে ভারতের বিপক্ষে শেষ তিন বলে ২ রানের সমীকরণ মেলাতে না পেরে হেরেছিল বাংলাদেশ। আজ হ্যামিল্টনে ভারতের বিপক্ষে তৃতীয় টি-টোয়েন্টিতে ৫ উইকেট হাতে নিয়েও চার বলে ২ রানের সমীকরণ মেলাতে পারল না নিউজিল্যান্ড।ফল, ম্যাচ টাই ও এরপর সুপার ওভারে ভারতের জয়। তাতে পাঁচ ম্যাচের সিরিজে ৩-০ ব্যবধানে এগিয়ে সিরিজ জয়ও নিশ্চিত করল ভারত। নিউজিল্যান্ডের মাটিতে তৃতীয় চেষ্টায় প্রথম টি-টোয়েন্টি সিরিজ জিতল।২০১৯ ওয়ানডে বিশ্বকাপের মহাকাব্যিক ফাইনালে মূল ম্যাচের পর সুপার ওভারও টাই করেছিল নিউজিল্যান্ড। দলটি বিশ্বকাপ খুইয়েছিল বাউন্ডারির হিসেবে পিছিয়ে থাকায়। এরপর গত নভেম্বরে টি-টোয়েন্টিতে ইংল্যান্ডের কাছে আরেকটি টাই ম্যাচে সুপার ওভারে হেরেছিল কিউইরা।

আজকের কারে সুপার ওভারে হ্যাটট্রিক যন্ত্রণাই সইতে হলো দলটিকে।

স্নায়ুক্ষয়ী উত্তেজনার ম্যাচে প্রথমে ব্যাটিং পেয়ে ৫ উইকেটে ১৭৯ রান করে ভারত। রান তাড়ায় ১ উইকেট বেশি হারিয়ে নিউজিল্যান্ডও করে ১৭৯ রান। এরপর যশপ্রীত বুমরার করা সুপার ওভারে কেন উইলিয়ামসন ও মার্টিন গাপটিল স্বাগতিকদের ১৭ রান এনে দেন। জবাবে প্রথম চার বলে ৮ রান তোলে ভারত। ২ বলে ১০ রানের সমীকরণে দাঁড়িয়ে টিম সাউদিকে বিশাল দুটি ছক্কা মেরে দলকে জিতিয়ে দেন রোহিত শর্মা। রোহিতের সঙ্গে সুপার ওভারে ব্যাটিং করেছেন লোকেশ রাহুল

ম্যাচটি যে সুপার ওভারে গড়াল তাতে সবচেয়ে বড় অবদান অথবা দায় দুটিই কেন উইলিয়ামসনের। রান তাড়ায় ১০ ওভারে ২ উইকেট হারিয়ে ৭৯ রান তুলেছিল নিউজিল্যান্ড। ৬০ বলে ১০১ রান—সমীকরণটা তখন বেশ কঠিনই বলতে হয়। সেই কঠিন কাজটিকেই সহজ বানিয়ে ফেলেন কিউই অধিনায়ক।২৮ বলে ৫০ ছোঁয়া উইলিয়ামসন কিছুক্ষণ পরপর ছক্কা মেরে কমিয়ে আনছিলেন বল ও রানের ব্যবধান। ১৬তম ওভারের শেষ বলে কলিন ডি গ্র্যান্ডহোম যখন চতুর্থ ব্যাটসম্যান হিসেবে আউট হলেন ৪ ওভারে ৪৩ রান দরকার নিউজিল্যান্ডের। পরের ওভারে বুমরাকে টানা তিন বাউন্ডারি মারেন উইলিয়ামসন। ওই ওভারে আসে ১৪ রান।যুজবেন্দ্র চাহালের করা ১৮তম ওভারে কোনো চার-ছক্কা না এলেও উঠল ৯ রান। সমীকরণটা তখন ১২ বলে ২০ রানের। বুমরার করা ১৯তম ওভারে একটি করে চারে ১১ রান তুললেন রস টেলর ও উইলিয়ামসন

উইলিয়ামসন হারলেন, জিতলেন রোহিত শর্মা

৬ বলে ৯ রান। সব নাটক হলো শেষ মোহাম্মদ শামির করা শেষ ওভারে।

প্রথম বলেই ফুলটসে লেগ সাইড দিয়ে ছক্কা মেরে দিলেন টেলর। ৫ বলে ৩ রান, দ্বিতীয় বলে ১ রান নিয়ে উইলিয়ামসনকে স্ট্রাইক দিলেন টেলর। ৪ বলে ২ রান। কিন্তু সেঞ্চুরি পেতে উইলিয়ামসনের দরকার ৫ রান। ছক্কা মারা ছাড়া উপায় কী! কিউই অধিনায়ক শামির শর্ট বলে ক্যাচ তুলে দিলেন উইকেটকিপার রাহুলের হাতে। শেষ হলো উইলিয়ামসনের ৪৮ বলে ৮ চার ও ৬ ছক্কায় সাজানো ৯৫ রানের ইনিংস। আন্তর্জাতিক টি-টোয়েন্টি কিউই অধিনায়কের এটিই সর্বোচ্চ।

৩ বলে ২ রান। শামির পরের বল থেকে রান নিতে পারলেন টিম সাইফার্ট। পরের বলে ব্যাটে-বলে না হলেও তড়িঘড়ি করে একটি বাই নিলেন সাইফার্ট।

১ বলে ১ রান। মাথা ঠান্ডা রেখে পঞ্চম স্টাম্প সোজা ফুলার লেংথে বলটাকে পিচ করালেন শামি। সেটাকেই টেনে এনে নিজের স্টাম্প ভেঙে দিলেন টেলর। ম্যাচ টাই

২০০৭ বিশ্বকাপের পর আজই প্রথম টি-টোয়েন্টিতে টাই করল ভারত। সেই বিশ্বকাপে পাকিস্তানের বিপক্ষে বোল আউটে জিতেছিল ভারতীয়রা। কাল সুপার ওভারেও জিতল বিরাট কোহলির দল।

সুপার ওভারের আগে মূল ম্যাচেও ভারতের ব্যাটিংয়ে সবচেয়ে জ্বলজ্বলে স্কোর রোহিতের। ৪০ বলে ৬ চার ও ৩ ছক্কায় ৬৫ রান করেছেন ভারতীয় ওপেনার। ২৭ বলে দ্বিতীয় সর্বোচ্চ ৩৮ রান কোহলির

You may also like

Leave a Comment