Home বাংলাদেশ করোনা পজিটিভ, নেগেটিভ, আবারো পজিটিভ; অতঃপর মৃত্যু!

করোনা পজিটিভ, নেগেটিভ, আবারো পজিটিভ; অতঃপর মৃত্যু!

by crictake

প্রথমে করোনা পজিটিভ, তারপর নেগেটিভ, অতঃপর মৃত্যু। এমন মর্মান্তিক ঘটনা ঘটেছে ভারতের পশ্চিমবঙ্গের কলকাতায়। হাসপাতাল থেকে ছেড়ে দেওয়া হয়েছিল ২৪ ঘণ্টা আগে, তারপর আবারো ফোন এসেছিল বাড়িতে, জানানো হয়, তাদের বাড়িতে অ্যাম্বুলেন্স আসছে। লোহার ব্যবসায়ী রাজ গুপ্তার বাবা ৬৮ বছর বয়সী ওম প্রকাশকে আনতে।

যদিও ২৪ ঘণ্টা আগেই একই হাসপাতালের থেকে জানানো হয়েছিল ওই বৃদ্ধের শরীরে করোনা ভাইরাস নেই, অর্থাৎ কভিড-১৯ নেগেটিভ। ফলে স্বাভাবিকভাবেই হাসপাতল থেকে দ্বিতীয়বারের ফোন কলে অবাক হয়ে গিয়েছিলেন ওই লোহার ব্যবসায়ী। হাসপাতাল থেকে ফোনে জানানো হয়, তার বাবা ওম প্রকাশের শরীরে করোনাভাইরাস পটিজিভ রয়েছে অর্থাৎ তিনি করোনায় আক্রান্ত।

রাজ গুপ্তা জানান, ‘আমার বাবাকে বাঙুর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। তারা জানায়, তিনি করোনা পটিজিভ এবং আমাদের হোম কোয়ারান্টিনে থাকতে বলে। পরদিন হাসপাতাল থেকে আমাদের ফোন করে জানানো হয়, আমার বাবা করোনা নেগেটিভ এবং ছেড়ে দেওয়া হবে। হাসপাতাল থেকে ছাড়ার সময় প্রশংসাপত্রে লেখা রয়েছে করোনা নেগেটিভ। পরে স্বাস্থ্য দফতর থেকে আমাদের ফোন করে জানানো হয়, আবারো আমার বাবার শরীরে করোনা পজিটিভ পাওয়া গেছে। পরে করোনায় মৃত্যু হয় তার।’

ওই ব্যক্তির মৃত্যু নিয়ে তদন্তের নির্দেশ দিয়েছে স্বাস্থ্য দফতর। ৩ মে তার অসুস্থ স্ত্রী, ছেলে এবং পুত্রবধু ও শিশুদের স্বাস্থ্য পরীক্ষা করা হবে।

গত সপ্তাহে, জ্বর, এবং কাশি নিয়ে এমআর বাঙুর হাসপাতালে ভর্তি করা হয় ওম প্রকাশকে। রাজ গুপ্তা জানান, স্বাস্থ্য দফতরের তরফে তাকে ফোন করা হয় এবং জানানো হয় তার বাবা করোনা পজিটিভ। চারদিন পর, রাজ গুপ্তাকে আবারও ফোন করে জানানো হয় তার বাবার পরীক্ষায় নেগেটিভ এসেছে।

রাজ গুপ্তা জানান, তাকে ভিন্ন ভিন্ন ফলের কথা জানানো হয়েছে, হাসপাতালের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে, তারা আমার বাবাকে বাড়ি পাঠাতে প্রস্তুত নন, যতক্ষণ না নেগেটিভ নিশ্চিত হচ্ছে। তারপরেই লকডাউন শুরু হওয়ায়, কলকাতার বাইরে থাকা তার ভাইপোকে ওমপ্রকাশকে নিয়ে গাড়িতে নিয়ে আসতে বলেন রাজ গুপ্তা।

পরদিন সন্ধ্যায়, হাসপাতালের পক্ষ থেকে জানানো হয় একটা ভুল হয়েছে এবং ওম প্রকাশকে আনতে তার বাড়িতে অ্যাম্বুলেন্স যাচ্ছে।

সূত্র- এনডিটিভি।

You may also like

Leave a Comment