Home বাংলাদেশ ডাক্তার-নার্সরা পিপিই পাচ্ছেন না, মজুদ করে ছবি আঁকছেন তিনি!

ডাক্তার-নার্সরা পিপিই পাচ্ছেন না, মজুদ করে ছবি আঁকছেন তিনি!

by crictake

যুক্তরাজ্যে ভয়াবহ বিপর্যয় সৃষ্টি করেছে নভেল করোনাভাইরাস। ব্যক্তিগত সুরক্ষা সামগ্রীর (পিপিই) অভাবে অনেক ডাক্তার-নার্স ও মেডিক্যাল কর্মীরা ঠিকমতো চিকিৎসা সেবা দিতে পারছেন না। পিপিইর অভাবে বেশ কিছু ডাক্তার-নার্স এরই মধ্যে সংক্রমিত হয়ে মারা গেছেন। এমন পরিস্থিতিতে ব্রিটেনেরই একজন মহিলা শিল্পী বিপুল পরিমাণ পিপিই (মাস্ক, গ্লোভস এবং ফেস শিল্ড) মজুদ করে তাতে রঙতুলি দিয়ে ছবি আঁকছেন। বন্ধুদের অনুরোধেও তিনি পিপিই ন্যাশনাল হেলথ সার্ভিসকে (এনএইচএস) দেবেন না বলে সাফ জানিয়ে দিয়েছেন।

মজুদ পিপিইর কিছুটা এরই মধ্যে তিনি রঙতুলির আঁচড়ে রাঙিয়ে তুলেছেন। ৩৫ বছর বয়সী ওই শিল্পী বেকা ব্রাউন জানিয়েছেন যে, তাদের আরো প্রস্তুত করা উচিত ছিল এবং তিনি এখন এই কিটটি বিক্রি শুরু করেছেন। তবে এজন্য তাকে ৫০০ শতাংশ পর্যন্ত লাভ দিতে হবে। তিনি দাবি করেছেন যে, তিনি মজুদ করা শুরু করেছিলেন কারণ তিনি তার বৃদ্ধ খালাকে দেখাশোনা করতে হয় এবং অপ্রয়োজনীয় ভ্রমণ করতে চান না তিনি। এছাড়া কিছু পিপিই শিল্পকর্মের জন্য ব্যবহার করেন।
করোনার এমন ক্রান্তিকালে পিপিই দান করতে অস্বীকার করায় ব্রাউনের সঙ্গে তার বেশ কিছু বন্ধু সম্পর্ক ছিন্ন করেছেন। ব্রাউনের এক বন্ধু দ্য সানকে বলেন, ‘আমি যে পরিমাণ পিপিই তার কাছে দেখেছি তাতে আমি অবাক হয়েছি। সে এগুলো তালাবদ্ধ করে রাখে। তাকে বলেছি যে এনএইচএস’র সংকট চলছে তার জন্য কিছুটা দান করা উচিত, কিন্তু সে বলেছে আমি এটা করবো না।’

ব্রাউন বলেন, ‘এনএইচএস’র যথাযথ প্রতিরক্ষামূলক ব্যক্তিগত সরঞ্জাম আছে কিনা তা নিশ্চিত করা আমার কাজ নয়। এটি সরকারের কাজ। নিজেকে এবং আমার শিল্প প্রদর্শনীর জন্য আমার পিপিই কিট দরকার, এবং এটি এনএইচএসকে আমি দান করব না। আমি করোনভাইরাস ভিত্তিক একটি প্রদর্শনী রাখছি এবং এনএইচএস প্রতিদিন যে আইটেমগুলি ব্যবহার করে তা হল আমার ক্যানভাস। আমি একেবারে কোন ক্ষমা চাই না কারণ শিল্পী হিসাবে আমাকে আমার কাজ এবং আমার যা চাই তা কেনার অধিকার আছে।’

তার কাছে মজুদ পিপিই মধ্যে রয়েছে, ২০০ ইউরোর ৫০০ সার্জিক্যাল মাস্ক, ৩০০ ইউরোর মিলিটারি স্টাইল ফেস মাস্ক, ২০০ ইউরোর এস শিল্ডস এবং ২০০ ইউরোর সার্জিক্যাল গ্লোভস।

ব্রাউন বলেছেন, ‘বন্ধুবান্ধবরা বলেছে যে তাদের এনএইচএসে অনুদান দেওয়া উচিত, তবে আমি করব না – তাদের আরও প্রস্তুত করা উচিত ছিল।’

সূত্র- মেট্রো ইউকে।

You may also like

Leave a Comment