Home আই পি এল ভারতকে হারানোর ফর্মুলা পাচ্ছে না নিউজিল্যান্ড

ভারতকে হারানোর ফর্মুলা পাচ্ছে না নিউজিল্যান্ড

by Sha id
ভারতকে হারানোর ফর্মুলা পাচ্ছে না নিউজিল্যান্ড

ভারতকে হারানোর ফর্মুলা পাচ্ছে না নিউজিল্যান্ড

ভারতকে হারানোর ফর্মুলা পাচ্ছে না নিউজিল্যান্ডগ্যারি স্টিড আজ নির্ঘাত মাথা চাপড়াচ্ছেন। ভারতকে কীভাবে হারানো যায়! আতিথ্য নিতে এসে ভারত যেভাবে প্রতি ম্যাচে হতাশায় ডোবাচ্ছিল, তাতে তো নিজেদের সামর্থ্য নিয়ে ধন্দে পড়ে যাচ্ছেন নিউজিল্যান্ড কোচ। পাঁচ ম্যাচের টি-টোয়েন্টি সিরিজে এর মাঝেই হেরে গেছে নিউজিল্যান্ড। ওয়েলিংটনেও ভারতকে আটকাতে পারেনি স্বাগতিক দল। ঠান্ডা মাথায় ম্যাচ শেষ করতে গিয়ে উল্টো শেষ ওভারের নাটক জন্ম দিয়েছিল নিউজিল্যান্ড। পরে সুপার ওভারে হেরেই বসেছে
১৬৬ রানের লক্ষ্য । সেটাকে ২০ বলে ১৯ রানে নামিয়ে এনেছিল নিউজিল্যান্ড। উইকেটে থিতু হওয়া টিম সাইফার্ট ও রস টেলর এ ম্যাচকে টেনে নিলেন শেষ ওভারে। ৬ বলে ৭ রান দরকার। প্রথম বলে আউট টেলর (২৪)। দ্বিতীয় বলে চার মারলেন ড্যারিল মিচেল। পরের বলে সিঙ্গেল নিতে গিয়ে আউট সাইফার্ট। মাঝে এক রান এল। পঞ্চম বলে আউট মিচেলও! শেষ বলে দরকার ২ রান। প্রায় ওয়াইড বলে ব্যাট ছুঁয়ে মাত্র এক রানই নিতে পেরেছেন স্যান্টনার। শেষ ওভার করতে গিয়ে শার্দুল ঠাকুর বনে গেলেন ভারতের নতুন নায়ক

টানা দ্বিতীয় ম্যাচকে সুপার ওভারে টানল নিউজিল্যান্ড ও ভারত।

সুপার ওভারে সাইফার্ট ও মানরো মিলে ১৩ রান এনে দিতে পেরেছেন নিউজিল্যান্ডকে। এর মাঝে সাইফার্ট আবারও দুবার জীবন পেয়েছেন। ১৪ রানের লক্ষ্যে নেমেছিলেন লোকেশ রাহুল ও বিরাট কোহলি। প্রথম বলেই ছক্কা, পরের বলেই চার। তৃতীয় বলে পুল করতে গিয়ে সীমানায় ধরা পরলেন রাহুল। পরের দুই বলেই কাজ সেরে নিয়েছেন কোহলি। মাত্র ৮ মাসে চারটি সুপার ওভারে হারার অনন্য কীর্তি গড়ল নিউজিল্যান্ড
কেন উইলিয়ামসন দুর্দান্ত ফর্মে আছেন। তিন ম্যাচেই তুলেছেন ১৬০ রান। কিন্তু তাঁকে সঙ্গ দিতে পারছিলেন না কেউই। আজ তাঁর অনুপস্থিতিতে রান তোলার কাজটা সবাই ভাগাভাগি করে নিয়েছেন। এতেও কাজ হয়নি। কলিন মানরো (৬৪), সাইফার্ট ও টেলরের মতো তিন ব্যাটসম্যান জ্বলে উঠেছিলেন। অবশ্য ভারতীয় ফিল্ডারদের একের পর এক ক্যাচ হাতছাড়া করাও ভালোই প্রভাব রেখেছে। যুজবেন্দ্র চাহালের টানা দুই বলে দুবার জীবন পেয়েছেন ৫৭ রান করা সাইফার্ট। কিন্তু তাতেও লাভ হয়নি।
এর আগে রোহিতের অভাব ভালোভাবেই টের পেয়েছে ভারত। অন্য ওপেনার লোকেশ রাহুল স্বভাবগত আক্রমণাত্মক শুরু করলেও অন্যপ্রান্তে কোনো সহযোগিতা পাননি। নবম ওভারে ২৬ বলে ৩৯ করা রাহুল যখন ফিরে যাচ্ছেন, দলের রান তখন ৪ উইকেটে ৭৫। সেটা মুহূর্তেই ৬ উইকেটে ৮৮ হয়ে গিয়েছিল। কাপতে থাকা ভারতকে উদ্ধার করেছেন মনীশ পাণ্ডে । ৩৬ বলে ৫০ রানে অপরাজিত ছিলেন পাণ্ডে। তাঁর সঙ্গে ঠাকুরের (২০) ৪৩ রানের জুটি ভারতকে ১৬৫ রান এনে দিয়েছিল।
সেই ঠাকুরই শেষ পর্যন্ত বল হাতে নায়ক বলে গেছেন ২০তম ওভারে।

You may also like

Leave a Comment